Tue. Dec 10th, 2019

Jhenaidahnews24.com

ঝিনাইদহ নিউজের অনলাইন ঠিবানা

পাটগ্রামে নিখোজের ৭ দিন পর ৮ম শ্রেণী পড়ুয়া ছাত্রী উদ্ধার , অভিযুক্ত আটক

1 min read

মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাফা জেলা প্রতিনিধি লালমনিরহাটঃপাটগ্রাম থানা পুলিশের সাফল্যে, নিখোজের ৭ দিন পর ৮ম শ্রেণী পড়ুয়া ছাত্রী উদ্ধার , অভিযুক্ত আটক, উপজেলার জগৎবেড় ইউনিয়নের ভেরভেরিরহাট এলাকার ৮ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে পালিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে মোঃ শাহীন (৩৫) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে।৭ দিন ধরে গোপন অনুসন্ধান চালিয়ে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারি ইউনিয়নের মাছির বাজার এলাকা থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার এবং বুড়িমারি থেকে অভিযুক্ত শাহীনকে আটক করেছে পাটগ্রাম থানার পুলিশ।এই ঘটনায় পাটগ্রাম থানায় মেয়ের মা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।শনিবার ২৯ নভেম্বর দিনগত রাত ১০ ঘটিকার সময় পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারি এলাকার মাছির বাজার এলাকায় শাহীনের সম্পর্কে এক বোনের বাড়ী থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে এবং শাহীনকে তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। অভিযুক্ত শাহীন একই উপজেলার বুড়িমারি ইউনিয়নের মোঃ কামুল্যাহর ছেলে।মেয়েটির মা আছমা খাতুন জানায়, গত ২৪/১১/১৯ ইং তারিখে পাটগ্রাম উপজেলার কালিরহাট থেকে আমার মেয়েকে প্রেমের প্রলোভন দেখিয়ে মোঃ শাহীন হোসেন পালিয়ে নিয়ে নিয়ে যায়। পরে মেয়ের মা- অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পাটগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ করেন।পুলিশ সেদিন থেকে গোপনে অনুসন্ধান করে বুঝতে পারে মেয়েটিকে নিয়ে সে আসেপাশেই আছে। সেই সূত্র ধরে অভিযুক্ত শাহীনকে আটক করে পাটগ্রাম থানায় নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রথমে সে স্বীকার না করলেও পরে স্বীকার করে। তার কথার জের ধরে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে।এ ব্যাপারে মেয়ের মা মোছাঃ আসমা খাতুন বলেন, আমরা খুবই গরিব মানুষ । আমার স্বামী নেই । এই সুযোগে আমার মেয়েকে ভুল বুঝিয়ে বাড়ী থেকে পালিয়ে নিয়ে নিয়ে গিয়ে শাহীন । আমি তাকে অনেকবার আমার মেয়ে কোথায় জানতে চাইলে সে বলে আমি জানিনা। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।
এই ব্যাপারে পাটগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত জানান, আমরা অভিযোগের সূত্র ধরে গোপনে অনুসন্ধান চালিয়ে অভিযুক্ত শাহীনকে আটক করি। পরে আসামীর স্বীকারক্তি অনুযায়ী তার সম্পর্কের এক বোনের বাড়ীতে থেকে মেয়েটিকে পাওয়া যায় । আসামী শাহীনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *